সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
অবশেষে মাথার চুল ফেলে যেভাবে গোপনে পালালেন ছাগলকান্ডের মতিউর দুই ভাই-বোনকে কামড় দেওয়া সাপটিকে হ’ত্যা করে হাসপাতালে নিয়ে এলেন স্বজনরা ছাগলকাণ্ডের মতিউর ও স্ত্রী-পুত্রের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা বেনজীর আহমেদের স্ত্রী ও দুই মেয়ে সোমবার দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) হাজির হননি অটোরিকশার ধাক্কায় প্রা’ণ গেল নারী পথচারীর কৃষক বেঁচে থাকলে দেশে খাদ্যের অভাব হবেনা….খাদ্যমন্ত্রী সন্ধি একাডেমীর কন্ঠশিল্পী সুমির জন্মদিন পালিত ভাঙ্গায় মোটরসাইকেল, ভ্যান ও ট্রলির ত্রিমুখী সং’ঘ’র্ষে নি’হ’ত ১ বরগুনায় সেতু ভেঙে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাস খালে, নি ‘ হ ‘ ত ৯ মহেশপুরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত ফরিদপুরের বিভিন্ন আবাসিক হোটেল থেকে ২০ নারী-পুরুষ আ’ট’ক ফরিদপুরে স্বামী-স্ত্রীর ঝ’গ’ড়া স্ত্রীর আ’ত্ম’হ’ত্যা জলঢাকায় অ’না’থ কন্যাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই চাঁদমনি আশ্রম আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অনন্য উচ্চতায় : খাদ্যমন্ত্রী শ্রীপুরের কাঁঠাল দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানি করা সম্ভব সালথায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস এর কমিটি গঠন ও যোগদান সভা অনুষ্ঠিত রঙিন পোশাকে নেতাকর্মী নিয়ে আওয়ামী লীগের ‘প্লাটিনাম জয়ন্তী’ অনুষ্ঠানে খসরু চৌধুরী এমপির অংশগ্রহণ পলাশবাড়ীতে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বর্নাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত লাইনের উপর দুহাত তুলে দাঁড়ালো গৃহবধূ কে’টে চলে গেল ট্রেন দ্বীপ জেলা ভোলায় দেখা মিললো রাসেল’স ভাইপার

‘নয়তো আমাকে মেরে ফেলুন বাবা-মা কষ্ট একবারে পাবে’

নির্মম নির্যাতনে নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের ভাই আববার ফাইয়াজ তার ভাইয়ের হত্যার বিচার চেয়ে ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে একথা বলেছেন। আবরার ফাইয়াজ বলেন, আমার ভাইয়ের হত্যার বিচার না করলে আমাকেও এখনই মেরে ফেলুন। যাতে বাবা-মা দুইবারে কষ্ট না পায়। একবারেই কষ্ট পায়।

তার ফেসবুক স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো…

“আজকে Additional SP (উনি বলেন উনার নাম মোস্তাফিজুর রহমান) কোথা থেকে সাহস পায় আমার গায়ে হাত দেয়ার? আমার ভাবি কে মারছে? নারী দের গায়ে নিষ্ঠুরভাবে হাত দেয়? এই চাটুকার দের কি বিচার হবে না? তিনি কালকে ২মিনিটে জানাযা শেষ করতে বলেন কিভাবে? যেই ছাত্র লীগ মারল তারা কেন সর্বত্র? বিচার চাই,,আমি বিচার চাই,,,নয়তো আমাকে মেরে ফেলুন বাবা মা কষ্ট একবারে পাবে।।।”

এর আগে আজ নিহত বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফায়াজকে পিটিয়েছে পুলিশ। ফাহাদের কবর জিয়ারত শেষে বুয়েট উপাচর্য সাইফুল ইসলাম ফাহাদের বাড়িতে প্রবেশ করতে গেলে বাধা দেয় গ্রামবাসী। এসময় গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের মুখে ভিসি ফাহাদের বাড়ি যেত পারেননি।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ এগিয়ে আসে। এতে গ্রামবাসীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। এসময় আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ ছাড়াও তার ফুপাতো ভাইয়ের স্ত্রী ও আরও একজন নারী আহত হন।

বুধবার বিকেলে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার রায়ডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বুয়েট উপাচার্যকে ‘এখন কেন আসছে এত দেরি করে’ নিহত ফাহাদের ভাই ফায়াজ এমন প্রশ্ন করার সময় পুলিশ তাকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেয়।

আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ অভিযোগ করে বলে, আমার গায়ে হাত দিয়েছে। বুকে গুতা মেরেছে। কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান নিজে আমাকে মেরেছে। আমার এক ভাইকে পিটিয়ে মেরেছে এবার পুলিশ কি আমাকে মারবে?

এ ব্যাপারে তাৎক্ষণিকভাবে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমানের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

৬ অক্টোবর (রবিবার) রাতে বুয়েটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে ডেকে নিয়ে যায় ছাত্রলীগের একদল নেতা-কর্মী। এরপর তাকে শেরে বাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় বুধবার পর্যন্ত ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সবাইকে আদালতের মাধ্যমে ৫ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page আমাদের পেজ লাইক করুন
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com